উত্তরা কাজী অফিস

  • 01711-905393, 01841-905393

Change Language: English

Comments

//

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ/বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহীম
আমি মোঃ আবু বকর সিদ্দিক, পিতা-মরহুম নোয়াব আলী, মাতা-রোকেয়া বেগম, ১নং ওয়ার্ড, উত্তরা, ঢাকা-বাংলাদেশ এর বাসিন্দা। আমি উত্তরার নাগরিক হিসেবে উত্তরা বাসীর সুবিধার জন্য /উপকারের জন্য আমার অনেক দায়িত্ব ও কর্তব্য আছে বলে মনে করি। ১নং ওয়ার্ড উত্তরা মডেল টাউন এর জন্য বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত একজন কাজী হিসেবে নিয়োগ/নির্ধারন করা আছে। আমি উত্তরার নাগরিক হিসেবে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিবাহের অনুষ্ঠানে যাই। তখন অনেক সময় উত্তরার কাজী সাহেব ব্যাতিত অন্য এলাকার অসাধু কাজী সাহেব এসে উত্তরার কাজী পরিচয় দিয়ে বিবাহ রেজিষ্ট্রেশন করিয়া যায়। পরবর্তীতে বর অথবা কনের আইনগত পদক্ষেপের কারনে। যখন কাবিন নামার দরকার হয় তখন কাবিন নামা খুঁজিয়া পাওয়া যায় না। তখন যে কাজী সাহেব বিবাহ রেজিষ্ট্রি করিয়াছেন তাহাকেও খুঁজিয়া পাওয়া যায় না। উত্তরার সচেতন নাগরিকরা যদি বিবাহের সময় বিবাহ রেজিষ্ট্রির জন্য উত্তরার কাজী সাহেবকে দিয়ে বিবাহ রেজিষ্ট্রি করান তাহলে ভবিষ্যতে আপনারা কেউ প্রতারণার স্বীকার হবেন না।
বিভিন্ন সময় বিবাহের অনুষ্ঠানে হোটেল বা রেষ্টুরেন্টে অনুষ্ঠান করা হয়। তখন হোটেলের ম্যানেজার বা অন্য দায়িত্বরত কর্তৃপক্ষ পার্টিকে বুঝিয়ে কাজী সাহেবের দায়িত্ব তারা নিয়ে নেয়। তখন উত্তরার বাহিরের কিছু অসাধু কাজী সাহেবকে দিয়ে বিবাহ রেজিষ্ট্রি করান। কিছু টাকার বিনিময়ে পার্টিকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে দেন। বর্তমানে ইন্টারনেটের/ওয়েব সাইটের যুগে বেশিরভাগ সময় নাগরিক গণ ইন্টারনেটের মাধ্যমে কাজী সাহেবের ঠিকানা খুঁজেন। আমি সচেতন নাগরিক হিসাবে সবাইকে যার যার এলাকার কাজী সাহেবের দ্বারা বিবাহ রেজিষ্ট্রি করার জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি।

বি: দ্র: দেশের জনগনের স্বার্থে।
নিবেদক
মাওঃ মোঃ আবু বকর সিদ্দিক
সৌজন্যে: উত্তরা কাজী অফিস, ঢাকা।

বিসমিল্লাহির রাহমানীর রাহীম

আমি মোঃ জহিরুল ইসলাম, পিতাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুস ভূঞা, মাতাঃ জোহেরা খাতুন, গ্রাম+ পোঃ চারগাছ, থানাঃ কসবা, জেলাঃ ব্রাক্ষনবাড়ীয়া। বর্তমানে আমি বাংলাদেশ সরকারের আইন মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত উত্তরা কাজী অফিসে মাওলানা হিসেবে আছি। কাজী অফিসের বৈশিষ্ট্যগুলি সকলের জ্ঞাতার্থে তুলে ধরা হলো।

  • কাজী অফিস একটি সামাজিক সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। তাই ছুটির দিনসহ প্রতিদিন সকাল ৮টা হইতে রাত ১১টা পর্যন্ত খোলা থাকে।
  • বিবাহ এবং তালাক সংক্রান্ত বিষয়ে ইসলাম ও রাষ্ট্রীয় আইন মোতাবেক পরামর্শ দেওয়া হয়।
  • বিবাহ অনুষ্ঠান উত্তরা কাজী অফিস, বাসা/বাড়ী, হোটেল,রেষ্টুরেন্ট, চাইনিজ রেষ্টুরেন্ট, আবাসিক হোটেল তথা উত্তরা মডেল টাউনের যেখানেই আয়োজন করা হোক আমরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে আইনগত ভাবে সম্পাদন করে থাকি।
  • ম্যারিজ সার্টিফিকেট এবং ডিভোর্স সার্টিফিকেট বাংলায় ও ইংরেজীতে ও অন্যান্য ভাষায় অনুবাদ করে দেয়া হয় ।
  • স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বিদেশ যাতায়াত/ভ্রমন, স্বামী-স্ত্রী হিসেবে পবিত্র হজ্বে গমন করিতে বিবাহ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নোটারী পাবলিক কর্তৃক সত্যায়িত করিয়া দেয়া হয়।
  • জরুরী প্রয়োজনে বৈবাহিক সনদ/ নিকাহনামা ১ দিনেই প্রদান করা হয়।

বি: দ্র: দেশের জনগনের স্বার্থে।
আরজগুজার
মাওঃ মোঃ জহিরুল ইসলাম
সৌজন্যে: উত্তরা কাজী অফিস, ঢাকা।

বিসমিল্লাহির রাহমানীর রাহীম

আমি মাওলানা আব্দুল বাছির, পিতা-শফিকুল ইসলাম, মাতা-রানু বেগম, আমি একজন উত্তরার বাসিন্দা, আমি একজন মাওলানা হিসেবে বিভিন্ন সময় শুভ বিবাহ অনুষ্ঠানে বিবাহ পড়ানোর জন্য উত্তরার বিভিন্ন বাসায়, হোটেল, রেষ্টুরেন্টে যাই। বিবাহের অনুষ্টানে প্রায় সময় দেখি গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত উত্তরা মডেল টাউনের নিয়োগপ্রাপ্ত কাজী ব্যাতীত অন্য এলাকার কাজী সাহেবরা আসিয়া উত্তরার কাজী পরিচয় দিয়ে বিবাহ রেজিষ্ট্রি করিয়া উত্তরার সেক্টর বাসীদেরকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলিতেছে। যাহা আমাদের সমাজের জন্য মঙ্গলজনক নয়। কারণ গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার নির্দিষ্ট এলাকাতে নির্দিষ্ট একজন মুসলিম ম্যারিজ রেজিষ্ট্রার নিয়োগ দিয়েছেন। বিধি মোতাবেক এক এলাকার রেজিষ্ট্রার অন্য এলাকায় আসিয়া বিবাহ রেজিষ্ট্রী করিতে পারে না। বিবাহ রেজিষ্ট্রিশন করিতে হইলে যে এলাকায় বিবাহটি অনুষ্ঠিত হবে ঐ এলাকার নিয়োগপ্রাপ্ত মুসলিম ম্যারিজ রেজিষ্ট্রার দ্বারাই বিবাহটি রেজিষ্ট্রি করানো উচিত। বিবাহ একটি পবিত্র বন্ধন, এই পবিত্র বন্ধনটি প্রথম মিথ্যা দিয়া শুরু করা হইল। মিথ্যা ঠিকানা দিয়ে বিবাহটি রেজিষ্ট্রেশন করিলে যাহা শরীয়ত ও আইনের পরিপন্থী।
একজন রেজিষ্ট্রার নিয়োগপ্রাপ্ত এলাকা ছাড়া বিবাহ পড়াইতে পারে, কিন্তু বিবাহ রেজিষ্ট্রী করিতে পারে না। বিবাহটি হল রাসূল (সাঃ) এর সুন্নাত। এই পবিত্র বিবাহটি যেখানে সম্পন্ন হচ্ছে ঐ এলাকার সরকার কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত মুসলিম ম্যারিজ রেজিষ্ট্রারার দ্বারাই রেজিষ্ট্রি করিবে। অন্য এলাকার রেজিষ্ট্রারার দ্বারা বিবাহ রেজিষ্ট্রী করাইলে বিবাহ সংক্রান্ত কাজগপত্র প্রয়োজনের সময় খুঁজিয়া পাওয়া যায় না। তাই আমরা সচেতন নাগরিক হিসাবে যে এলাকায় বিবাহ অনুষ্ঠান হবে ঐ এলাকার দায়িত্বরত মুসলিম ম্যারিজ রেজিষ্ট্রার দ্বারাই বিবাহটি রেজিষ্ট্রি করিব/ করানো উচিত।
বি: দ্র: দেশের জনগনের স্বার্থে।

নিবেদক
মাওঃ আব্দুল বাছির
সৌজন্যে: উত্তরা কাজী অফিস, ঢাকা।
গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
উত্তরা কাজী অফিস
উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০।


Warning: call_user_func_array() expects parameter 1 to be a valid callback, function 'wp_ob_end_flush_all' not found or invalid function name in /home/uttarakazffice/public_html/wp-includes/class-wp-hook.php on line 286